মির্জাপুরে অর্থের ভাবে ডায়ালাইসিস করতে পারছেন না অসহায় হুমায়ুন মিয়া

453

মীর আনোয়ার হোসেন টুটুল ॥
করোনা ভাইরাসের মত দুর্যোগের সময় অর্থের অভাবে ডায়ালাইসিস করতে পারছেন না দুটি কিডনী নষ্ট হয়ে যাওয়া দরিদ্র ও অসহায় মো. হুমায়ুন মিয়া (৫০)। স্বামীকে ডায়ালাইসিসের মাধ্যমে বাঁচানোর জন্য আর্থিক সাহায্য চেয়ে দ্ধারে দ্ধারে ঘুরছেন অসহায় বিউটি বেগম। একদিকে অসুস্থ্য স্বামীকে নিয়ে দুঃচিন্তা অন্য দিকে সংসারে দুটি সন্তানকে নিয়ে চরম বিপাকে পরেছেন অসহায় বিউটি বেগম। টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের হারভাঙ্গা গ্রামে হুমায়ুন মিয়ার বাড়ি।
আজ সোমবার বিউটি বেগম জানায় তার বাপের বাড়ি লতিফপুর ইউনিয়নের যুগিরকোপা গ্রামে। ২১ বছর পুর্বে ফতেপুর ইউনিয়নের হারভাঙ্গা গ্রামের মো. ফিরোজ মিয়ার ছেলে মো. হুমায়ুন মিয়ার সঙ্গে তার বিয়ে হয়। চার বছর ধরে তার স্বামী হুমায়ুন মিয়ার কিডনিতে সমস্যা দেখা দেয়। কুমুদিনী হাসপাতাল ও ঢাকার কিডনি ইনস্টিটিউট ডায়ালাইসিস সেন্টারে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর চিকিৎসকগন জানান তার স্বামীর দুটি কিডনি নষ্ট (বিকল) হয়ে গেছে। তাকে বাঁচিয়ে রাখতে হলে অন্তত একটি কিডনি পরিবর্তন করতে হবে। কিডনি পরিবর্তন করতে না পারলে মাসে তিন চার বার ডায়ালাইসিস করতে হবে বলে চিকিৎসকগন পরামর্শ দেন। কিন্ত দরিদ্র ও অসহায় পরিবার অর্থ যোগার করতে না পারায় ডায়ালাইসিস করতে এবং কিডনি পরিবর্তন করতে পারছে না। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ মো. একাব্বর হোসেন এমপির সুপারিশে ঢাকার কিডনি ইনস্টিটিউট ডায়ালাইসিস সেন্টারে কয়েকটি ডায়ালাইসিস করেছেন। করোনা ভাইরাসের কারনে এবং অর্থ না থাকায় ডায়ালাইসিস এখন বন্ধ। এখন অর্থের অভাবে ডায়ালাইসিস করতে না পেরে তার স্বামী হুমায়ুন মিয়া দিন দিন অসুস্থ্য ও মৃত্যুর দিকে যাচ্ছে। সপ্তাহে একটা ডায়ালাইসিস করতে ৩-৪ হাজার টাকার প্রয়োজন হয়। স্বামীকে বাঁচানোর জন্য অসহায় বিউটি বেগম প্রধান মন্ত্রী, স্বাস্থ্য মন্ত্রীসহ দেশ ও দেশের বাহিরে হৃদয়বান ব্যক্তিদের কাছে আর্থিক সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন। বিউটি বেগম ও অসুস্থ্য হুমায়ুন মিয়ার মোবাইল নম্বর-০১৭১৪-৩৯৯৫৬২ ।
এ ব্যাপারে লতিফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন বলেন, বিউটি বেগম ও হুমায়ুন মিয়ার পরিবারটি খুবই দরিদ্র। এ পর্যন্ত ধারদেনা করে চিকিৎসা করেছেন এখনও তাও বন্ধ। দরিদ্র পরিবারটিকে আর্থিক সহযোগিতার জন্য তিনি সকলের নিকট অনুরোধ করেছেন।