মির্জাপুরে নিরবেই চলে গেল সাবেক মেয়র সুমনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী

মীর আনোয়ার হোসেন টুটুল ॥
নিরবেই চলে মেয়র সাবেক জনপ্রিয় মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক সাবেক ভিপি মো. সাহাদত হোসেন সুমনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী। গত বছরের এই দিনে (১১ ফেব্র“য়ারি) তিনি অকালে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে যান। তার শুন্যতা আজও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও এর সহযোগি সংগঠন এবং পরিবার ভুলতে পারেনি।
আজ বৃহস্পতিবার আওয়ামীলীগের নের্তৃবৃন্দ জানান, সাবেক মেয়র সাহাদত হোসেন সুমন ছিলেন দুঃসময়ে আওয়ামীলীগের রাজপথের অকোতভয় সৈনিক। ছাত্রলীগ, যুবলীগ, শ্রমিক, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, মহিলালীগ ও আওয়ামীলীগকে চাঙ্গা করে রেখেছিলেন সুমন। তার ছিলনা কোন চাওয়া পাওয়া। বঙ্গবন্ধু এবং আওয়ামীলীগই ছিল দ্যান ও জ্ঞান। তার জনপ্রিয়তার কারনেই মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ ছিল সু-সংগঠিত। তার অকাল মৃত্যুতে দলেল জন্য অপুরনীয় ক্ষতি হয়েছে বলে নেতাকর্মীরা উল্লেখ করেন।
এদিকে আজ ১১ ফেব্র“য়ারি চিল প্রয়াত এই জনপ্রিয় মেয়রের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী। প্রথম মৃত্যু বার্ষিকীতে উপজেলা ্ওায়ামীলীগ ও এর সহযোগি সংগঠন তার স্মরনে তেমন কোন অনুষ্ঠান পালন করেনি। পৌরসভার পক্ষ থেকে সকালে তার স্মরনে দোয়া মাহফিলের এায়াজন করেছিল। এছাড়া তার পরিবারের পক্ষ থেকে মির্জাপুর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে মিলাদ ওদোয়া মাহফিল এবং পুষ্টকামুরী গ্রামে এতিম খানায় দোয়ার এায়াজন করেছিল।
এ ব্যাপারে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সাদ্দাম হোসেন বলেন, দেশে চলমান করোনাসহ বিভিন্ন কারনে প্রয়াত জনপ্রিয় মেয়র ও আওয়ামীলীগের এক সময়ের কান্ডারী সাহাদত হোসেন সুমনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী সিমিত কয়েকটি এলাকায় পরিসরে পালিত হয়েছে।