তরফপুর ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান প্রার্থীর নামে মিথ্যা মানহানিকর ভিডিও ভাইরাল করায় ৪ জনের বিরুদ্ধে মির্জাপুর থানায় অভিযোগ।

0
54

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক. টাঙ্গাইল প্রতিনিধি
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের তরফপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকে সদ্য চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. নাজিম উদ্দিন মোল্লার বিরোদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট, মানহানিকর ভিডিও সামাজিক গনমাধ্যমে ভাইরাল করায় গত ২৬-৬-২০২২ ইং তারিখে নাজিম উদ্দীন মোল্লা বাদী হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে মির্জাপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগের বিবরনে দেখা যায়,বাদী আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতীক পেয়ে নির্বাচন করে। তার প্রতিপক্ষ শরীফুর রহমান (শরীফ) চশমা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে হেরে যাওয়ায় শরীফ সহ তার কিছু দলবল নিয়ে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী চলাকালীন সময়ে বাদীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মানহানিকর বানোয়াট বক্তব্য রাখে। বাদী নাকি জয়ী চেয়ারম্যান মটর সাইকেল মার্কা আজিজ রেজার নিকট থেকে ৫০,০০০০০(পঞ্চাশ লক্ষ) টাকা নিয়ে তাকে সমর্থন দিয়ে পাশ করিয়াছে। তার এই মিথ্যা ভিডিও ফেইজবুক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হলে বাদী বিবাদী শরীফুর রহমান (শরীফ) সাং- পাথরঘাটা, জাহাঙ্গীর আলম সাং-সিট মামুদপুর, রাসেদ মিয়া সাং-পাথরঘাটা, মাসুদ রানা সাং-তরফপুর গংদের নিকট বিষয়টির ব্যাপারে জানতে চাইলে বিবাদীরা বাদীকে গুমকরা রাস্তাঘাটে আক্রমন সহবিভিন্ন প্রকার হুমকি দিয়ে আসতেছে। এতে মিথ্যা অপপ্রচারকে কেন্দ্র করে এলাকায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষসহ থমথমে আতংক বিরাজ করতেছে। যেকোন মূহুর্তে ঘটতেপারে খুনসহ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ।
টাকার বিষয়ে জয়ী চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. আজিজ রেজার নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, নির্বাচন চলাকালীন সময়ে নাজিম মোল্লার সাথে আমার কোন প্রকার সাক্ষাত হয়নি বিষয়টি মিথ্যা ও বানোয়াট। এক প্রকার কুচক্রীমহল এধরনের মিথ্যা অপ প্রচার চালিয়ে আমাদের সম্মানক্ষুন্ন করতেছে।

এ বিষয়ে নাজিম উদ্দিন মোল্লা বলেন, শরীফুর রহমান (শরীফ) প্রথমে বি,এনপি করত পরে আওয়ামীলীগে যোগদান করে ২০২১নির্বাচনের সার্থে আওয়ামীলীগ দল ত্যাগ করে নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে। এই নির্বাচনে হেরে গিয়ে ১৯৭১ সালে ক্রসফায়ারে হত্যাকৃত রাজাকার সন্তান সহ এক কুচক্রীমহলের ছত্রছায়ায় তরফপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সংগঠনকে ধ্বংস করার লক্ষে আমার বিরোদ্ধে ষড়যন্ত্র করতেছে।
এ বিষয়ে মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো. তাহরীম হোসেন সীমান্ত বলেন, বিষয়টির ব্যাপারে অবগত আছি। অফিসিয়ালভাবে কোন দরখাস্ত পরেনি। দরখাস্ত আসলে বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা হবে।
মির্জাপুর থানার এস আই আরিফ তালুকদার বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here